শব্দ ও শব্দভান্ডার

প্রত্যেক ভাষার নিজস্ব শব্দভান্ডার রয়েছে। অনেকগুলো শব্দ নিয়ে শব্দভান্ডার গঠিত হয়। একটি শব্দ হল একটি স্বাধীন ভাষাগত একক। শব্দের সবসময় স্বতন্ত্র অর্থ রয়েছে। শব্দের মধ্যে পার্থক্য করা যায় ধ্বনি ও শব্দাংশ দিয়ে। প্রত্যেক ভাষায় অসংখ্য ভিন্ন ভিন্ন শব্দ রয়েছে। যেমন, ইংরেজী ভাষায় অনেক শব্দ আছে। শব্দভান্ডারের দিক দিয়ে ইংরেজী পৃথিবী বিখ্যাত। ইংরেজী ভাষায় আনুমানিক ১০ লাখ শব্দ আছে। অক্সফোর্ড ইংরেজী ডিকশেনারীতে প্রায় ৬ লাখ শব্দ আছে। চাইনীজ, স্প্যানীশ ও রাশান ভাষার শব্দভান্ডার আরো কম। একটি দেশের ইতিহাসের উপর নির্ভর করে শব্দভান্ডার। ইংরেজী ভাষা অন্যান্য ভাষা ও সংস্কৃতি দ্বারা প্রভাবিত।

এইজন্যই ইংরেজী ভাষার শব্দভান্ডার এত বিশাল। এমনকি এই শব্দভান্ডার বেড়েই চলেছে। বিশেষজ্ঞরা বলেন প্রতিদিন প্রায় ১৫টি শব্দ ইংরেজী ভাষার যুক্ত হয়। অন্যান্য জায়গা ছাড়াও নতুন মিডিয়া থেকে এটা হয়। বৈজ্ঞানিক পারিভাষিক শব্দ এই গণনার বাইরে। শুধুমাত্র রাসায়নিক পারিভাষিক শব্দ রয়েছে কয়েক হাজার। প্রায় প্রত্যেক ভাষায় ছোট শব্দের চেয়ে বড় শব্দ বেশী ব্যবহৃত হয়। বেশীরভাগ মানুষ খুব কমসংখ্যক শব্দ ব্যবহার করে। এই জন্য আমরা প্রত্যক্ষ ও পরোক্ষ শব্দভান্ডার থেকে শব্দ পছন্দ করি। পরোক্ষ শব্দভান্ডারে সেইসব শব্দ থাকে যা আমরা বুঝি। কিন্তু আমরা সেগুলো কম বলি বা বলিই না। প্রত্যক্ষ শব্দভান্ডারে সেইসব শব্দ থাকে যা আমরা প্রায়ই ব্যবহার করি। খুব কমসংখ্যক শব্দ কথা বলতে ও খুদে বার্তা পাঠাতে ব্যবহৃত হয়। ইংরেজীতে কথা বলতে আমরা মোটামুটি ৪০০ শব্দ ও ৪০ টির মত ক্রিয়া ব্যবহার করি। তাই আপনার শব্দভান্ডার যদি কম হয় তাহলে চিন্তার কিছু নেই।