ইন্দোনেশিয়া, বহুভাষার দেশ

প্রজাতন্ত্র ইন্দোনেশিয়া পৃথিবীর একটি অন্যতম বড় দেশ। প্রায় 24 কোটি লোক এই দ্বীপ দেশে বাস কর। এইসব লোক বিভিন্ন জাতিতে বিভক্ত। প্রায় 500 জাতি ইন্দোনেশিয়ায় রয়েছে। এসব জাতির অনেক সাংস্কৃতিক ঐতিহ্য রয়েছে। তাদের ভাষাও অসংখ্য। ভাষার সংখ্যা প্রায় 250 । এর উপরে আবার অনেক উপভাষা রয়েছে। এভাবে বিভিন্ন জাতিতে বিভক্ত ইন্দোনেশিয়ার ভাষাগুলো। যেমন, জাভা ও বালি ভাষা। এত বিশাল ভাষাগোষ্ঠী সমস্যার সৃষ্টি করে। তারা শক্তিশালী অর্থনীতি ও প্রশাসনের অন্তরায়। তারপরও তাদের একটি রাষ্ট্রভাষা আছে।

1945 সালে স্বাধীনতার পর বাহাসা ইন্দোনেশিয়া তাদের রাষ্ট্রভাষা। স্থানীয় ভাষার পাশাপাশি সব স্কুলে এটা শেখানো হয়। তা সত্ত্বেও ইন্দোনেশিয়ার সবাই এই ভাষায় কথা বলতে পারেনা। বাহাসা ইন্দোনেশিয়া ভাষায় মাত্র 70% মানুষ ভালভাবে কথঅ বলতে পারে। বাহাসা ইন্দোনেশিয়া মাত্র দুই কোটি মানুষের মাতৃভাষা। ফলে, স্থানীয় অনেক ভাষার গুরুত্ব রয়েছে। ইন্দোনেশিয়ার ভাষা ভাষাপ্রেমীদের কাছে খু্ব আকর্ষনীয়। কারণ এই দেশের ভাষা শিখলে সুবিধা আছে। এখানকার ভাষা তুলনামূলক সহজ। ব্যকরণের নিয়মগুলো ও খুব দ্রুত শেখা যায়। উচ্চারণের ও বানান একই। বিশুদ্ধ বানান ও খুব একটা কঠিন না। অনেক ইন্দোনেশিয়ার শব্দ অন্য ভাষা থেকে এসেছে। এবং: এই ভাষা দ্রুত গুরুত্বপূর্ণ একটি ভাষায় পরিণত হবে। তাই ইন্দোনেশিয়ার ভাষা শেখার যথেষ্ট কারণ আছে, ঠিক না?