মস্তিষ্ক নতুন শব্দ কিভাবে শিখবে

নতুন শব্দ শিখলে,আমাদের মস্তিষ্ক নতুন বিষয়বস্তু সঞ্চয় করে। অবিরত পুনরাবৃত্তির সঙ্গে শুধুমাত্র শিক্ষা জড়িত। কতটা ভালভাবে আমাদের মস্তিষ্ক শব্দ সঞ্চয় করবে তা একাধিক কারণের উপর নির্ভরশীল। কিন্তু সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ বিষয় হল আমরা একটি নিয়মিত ভিত্তিতে শব্দভান্ডার পর্যালোচনা করি। আমরা যে শব্দগুলো প্রায়ই লিখি ও ব্যবহার করি সেগুলোই শুধু সঞ্চয় হয়। এই শব্দগুলো ছবির মত সংরক্ষন হয়। শেখার এই নীতি বনমানুষের ক্ষেত্রেও সত্য। বনমানুষরা "পড়া" শব্দটি শিখতে পারে, যদি তারা প্রায়ই এটা দেখে। যদিও তারা শব্দ চিনতে পারে না, শব্দের গঠন তারা দেখে চিনে। অনর্গল একটি ভাষা বলতে, আমাদের অনেক শব্দ প্রয়োজন। সে জন্য, শব্দভান্ডার ভালভাবে সংগঠিত করতে হবে। একটি সংরক্ষণাগারের মত আমাদের মস্তিষ্ক কাজ করে। দ্রুত একটি শব্দ খুঁজে পেতে, মস্তিষ্ক জানে যে কোনখানে অনুসন্ধান করা আবশ্যক।

তাই একটি বিশেষ প্রেক্ষাপটে শব্দ শিখলে ভাল হয়। তাহলে আমাদের মস্তিষ্ক সবসময় সঠিক "ফাইল" খুলতে সক্ষম হবে। এমনকি আমরা যেটা ভালভাবে শিখেছি, তাও ভুলে যেতে পারি। এই ক্ষেত্রে, জ্ঞান নিষ্ক্রিয় স্মৃতি থেকে সক্রিয় স্মৃতিতে চলে আসে। যে জ্ঞান আমাদের প্রয়োজন হবে না বলে মনে করি তা ভুলে গিয়ে নিজেদেরকে মুক্ত করি। এইভাবে,আমাদের মস্তিষ্ক নতুন এবং আরো গুরুত্বপূর্ণ বিষয়ের জন্য স্থান করে দেয়। অতএব, নিয়মিত আমাদের জ্ঞান সক্রিয় করা গুরুত্বপূর্ণ। কিন্তু নিষ্ক্রিয় স্মৃতি,চিরতরে হারিয়ে যায় না। আমরা যখন একটি বিস্মৃত শব্দ দেখতে পাই, আমরা আবার সেটা মনে করি। আমরা দ্বিতীয়বারে আরো দ্রুত শিখি। যে তার শব্দভান্ডার প্রসারিত করতে চায়, ​​তার শখ প্রসারিত করতে হবে। কারণ, আমাদের সবার নির্দিষ্ট আগ্রহের ব্যাপার আছে। এইসব ব্যাপারে আমরা সাধারণত নিজেদের ব্যস্ত রাখি। কিন্তু একটি ভাষা বিভিন্ন অর্থসংক্রান্ত শব্দ নিয়ে গঠিত। রাজনীতিতে আগ্রহী একজন ব্যক্তির ক্রীড়া সম্পর্কিত কাগজপত্র ও মাঝে মাঝে পড়া উচিত !