বাংলা » জার্মান   রেস্টুরেন্ট ৩ – এ


৩১ [একত্রিশ]

রেস্টুরেন্ট ৩ – এ

-

+ 31 [einunddreißig]

+ Im Restaurant 3

৩১ [একত্রিশ]

রেস্টুরেন্ট ৩ – এ

-

31 [einunddreißig]

Im Restaurant 3

পরবর্তী দেখার জন্য ক্লিক করুনঃ   
বাংলাDeutsch
আমার একটা স্টার্টার চাই ৷ Ic- m----- e--- V--------. +
আমার একটা সালাদ চাই ৷ Ic- m----- e---- S----. +
আমার একটা স্যুপ চাই ৷ Ic- m----- e--- S----. +
   
আমার একটা ডেজার্ট (মিষ্টান্ন) চাই ৷ Ic- m----- e---- N--------. +
আমার ফেটানো ক্রীম সহ একটা আইসক্রীম চাই ৷ Ic- m----- e-- E-- m-- S----. +
আমার ফল অথবা পনির চাই ৷ Ic- m----- O--- o--- K---. +
   
আমরা জলখাবার / নাশতা খেতে চাই ৷ Wi- m------ f----------. +
আমরা দুপুরের খাবার খেতে চাই ৷ Wi- m------ z- M----- e----. +
আমরা রাতের খাবার খেতে চাই ৷ Wi- m------ z- A---- e----. +
   
আপনার জলখাবারের / নাশতা জন্য কী চাই? Wa- m------ S-- z-- F--------? +
জ্যাম এবং মধু দিয়ে রোল? Br------ m-- M-------- u-- H----? +
সসেজ এবং চীজ (পনির) দিয়ে টোস্ট? To--- m-- W---- u-- K---? +
   
একটা সিদ্ধ করা ডিম? Ei- g-------- E-? +
একটা ভাজা ডিম? Ei- S--------? +
একটা ওমলেট? Ei- O------? +
   
দয়া করে আর একটা দই দিন ৷ Bi--- n--- e---- J------. +
দয়া করে একটু নুন এবং মরিচও দিন ৷ Bi--- n--- S--- u-- P------. +
দয়া করে আর এক গ্লাস জল / পানি দিন ৷ Bi--- n--- e-- G--- W-----. +
   

সফলভাবে ভাষা শিক্ষা সম্ভব!

কথা বলা তুলনামূলকভাবে সহজ। কিন্তু সফলভাবে কথা বলা অনেক কঠিন। তাই, কিভাবে কথা বলছি তার থেকে কি বলছি এটা জরুরী। অনেক গবেষণা এটা প্রমাণ করেছে। শ্রোতা অবচেতনভাবে বক্তার বিশেষ কিছু বৈশিষ্ট্যের দিকে খেয়াল রাখেন। এভাবে, আমাদের বক্তব্য ভালভাবে গ্রহণ করা হবে কি হবেনা তার উপর আমরা প্রভাব ফেলতে পারি। এজন্য আমাদের বক্তব্য আমরা কিভাবে দিচ্ছি সেদিকে খেয়াল রাখতে হবে। আমাদের শারীরিক ভঙ্গিও এক্ষেত্রে জরুরী। তাই এটা বিশ্বাসযোগ্য করতে হবে ও আমাদের ব্যক্তিত্ত্বের সাথে মিল রাখতে হবে। কন্ঠস্বরের দিকেও খেয়াল রাখতে হবে কারণ এটিও মূল্যায়ণ করা হয়। পুরুষদের সাথে কথা বলার সময় জোরালোভাবে বলা উচিৎ। এটা বক্তাকে আত্মবিশ্বাসী ও যোগ্য প্রমাণ করে। অন্যদিকে কন্ঠস্বরের ভিন্নতার কোন মূল্য নেই।

বিশেষ করে দ্রুত কথা বলাও গুরুত্বপূর্ণ। কথোপকথনের সফলতা সফল কথা বলা মানে অন্যকে প্ররেচিত করা। তাই যে অন্যদেরকে প্ররেচিত করতে চাই তাকে অবশ্যই ধীরে ধীরে কথা বলতে হবে। তা না হলে সে এমন একটা ভাব করবে যে সে আন্তরিক না। কিন্তু খুব ধীরে ধীরে কথা বলাও ভাল না। যারা খুব ধীরে কথা বলে তাদেরকে আমরা নির্বোধ মনে করি। তাই মোটামুটি গতিতে কথা বলা উচিৎ। প্রতি সেকেন্ডে ৩.৫ টি শব্দ বলা ভাল। মাঝে মাঝে থেমে কথা বলতে হয়। এভাবেই আমাদের বক্তব্য সাবলীল ও বিশ্বাসযোগ্য হবে। ফলে, শ্রোতারা আমাদের বিশ্বাস করবে। প্রতি মিনিটে ৪-৫ বার থামা উচিৎ। সুতরাং, আপনার বক্তব্যকে গ্রহনযোগ্য করার চেষ্টা করুন। এরপর পরবর্তী সাক্ষাৎকারের জন্য প্রসÍুত হন।